Honda CBR150R vs Yamaha YZF-R15 version 2.0: Comparison

87

আমরা আজ হানা দিয়েছি বর্তমান সময়ের বাজারে দুটি হটেস্ট 150cc বাইক নিয়ে লিখব বলে। দুটি বাইকই জায়ান্ট  মানে দানব বললেই চলে। এই দুটি বাইক ক্রয়ের ক্ষেত্রে সবাই সবসময়ই দ্বিধাবোধ করে এই ব্যাপারে যে কোন বাইকটা আসলে তিনি কিনবেন নিজের জন্য। কারন আপনি কোনটিকেই খারাপ কিংবা আকর্ষণীয় নয় বলতে পারবেন না ।

এই আর্টিকেল টিতে দুটি বাইকের বিস্তারিত সকল কিছু নিয়ে আলোচনা করব। আশা করি আমাদের আজকের  এই আর্টিকেল পড়ার পর নিশ্চয়ই আপনি বেছে নিতে পারবেন, কোন বাইক টি কিনবেন

পুরো আর্টিকেল টি পরে আপনার মতামত কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না।

বাইক দুটি নিয়ে কিছু কথা

বাংলাদেশে Yamaha R15 বিক্রয় কার্যক্রম শুরু হয় ২০০৮ সালের দিকে। প্রথম থেকেই এর  আকর্ষণীয় স্টাইলিশ লুক এবং হেভি স্পোর্টস কোয়ালিটি এর কারণে এটি সবার মন জয় করে নেয় । বিশেষ করে তরুণ  প্রজন্মের জন্য তো এটা স্বপ্নের বাইকে পরিণত হয়ে।

বাংলাদেশে Yamaha R15 এর স্পটলাইট হিসেবে সাফল্য লাভের পর পরই হোন্ডা কোম্পানি তাঁদের আকর্ষণীয় ও সম্পূর্ণ স্পোর্টস বাইক Honda CBR 150R  বিক্রয়ের জন্য বাংলাদেশে বাজারজাত করণ শুরু করে।

বাইক দুটির সুন্দর স্টাইলিশ হেডলাইট ও ফ্রন্ট এবং ফুয়েল ট্যাঙ্কের স্টাইল , বসার সিট , পেছনের বসার সিট , সুন্দর টেইল লাইট সবকিছূ মিলিয়ে বাইক দুটিকে একটা চরম রেসিং লুক দিয়েছে । দেখলেই যেন মনে হয় চরম গতিতে ছুটে চলার জন্য প্রস্তুত।

Yamaha R15- স্পেসিফিকেশন 

  • টপ স্পীড ১১৫-১৩০ কিমি (এভারেজ)। তবে এটা সম্পুর্ন আপনি কেমন রাস্তায় ও কি ভাবে চালাচ্ছেন তার উপর নির্ভর করে।
  • মাইলেজ ২৫ থেকে ৩৫ কিলোমিটার শহরের ভিতরে এবং হাইওয়েতে ৩৫ থেকে ৪৫ কিলোমিটার (এভারেজ)।

 

  • এর ইঞ্জিন ১৪৯.৮সিসি লিকুইড কোল্ড ৪ স্ট্রোক ক্ষমতাসম্পন্ন এবং SOHC ফিচার সম্পন্ন।
  • বিএইচপি ১৬.৮ ও ৮৫০০আরপিএম টর্ক ক্ষমতা
  • ফুয়েল ক্যাপাসিটি ১২ লিটার
  • সিক্স স্পীড গিয়ার বক্স
  • ডেল্টাবক্স ফ্রেম যা একজন বাইকারকে তার ১৫০ সিসি এর দানবীয় মোটরসাইকেলটিকে কন্ট্রোলে রাখতে সাহায্য করে থাকে।
  • ওজন ১৩৬ কেজি।

Honda CBR150R  এর স্পেসিফিকেশন

  • টপ স্পীড ১৩০-১৪০ কিমি (এভারেজ)।
  • মাইলেজ প্রায় ৩৫ থেকে ৪০ লিটার ঢাকার ভেতর এবং হাইওয়েতে ৪২-৪৮কিমি পর্যন্ত ।
  • ইঞ্জিন ক্ষমতা ১৪৯.৮ সিসি লিকুইড কোল্ড ৪ স্ট্রোক ইঞ্জিন DOHC  ক্ষমতাসম্পন্ন ।
  • বিএচপি ১৮.২৬ ও ১০,৫০০ আরপিএম টর্ক ক্ষমতাসম্পন্ন ইঞ্জিন।
  • ডায়ামন্ড ট্রাস টেলিস ফ্রেম ।
  • ফুয়েল ক্যাপাসিটি ১৩ লিটার
  • ওজন ১৩৮ কেজি

 

Yamaha R15 V2  বনাম Honda CBR150R এর তুলনা

DIMENSIONS, WEIGHT & CAPACITIES

  YZF R15 CBR
Kerb/Wet Weight 136 kg 135 kg
Ground Clearance 160 mm 166 mm
Fuel Tank Capacity 12 litres 12 litres
Wheelbase 1345 mm 1311 mm
Overall Length 1970 mm 1983 mm
Overall Width 670 mm 694 mm
Overall Height 1070 mm 1038 mm
Seat Height 800 mm 787 mm
Reserve Fuel Capacity 1.2 litres NA

COMFORT & CONVENIENCE

  YZF R15 CBR
Electric Start YES YES
Pillion Footrest YES YES
Pass Light YES YES
Step-up Seat/Split Seat YES YES
Pillion Grabrail YES YES
Engine Kill Switch YES N/A

WHEELS & TYRES

  YZF R15 CBR
Tubeless Tyres YES YES
Alloy Wheels YES YES
Wheel Type Alloy Wheels Alloy Wheels
Front Tyre 90/80-17 100/80-17 52P
Rear Tyre 130/70-R17 130/70-17 62P
 

ENGINE & GEARBOX

  YZF R15 CBR

Displacement

149.8 cc 149.16 cc
Bore 57 mm 57.3 mm
Stroke 58.7 mm 57.8 mm
No. of Cylinders 1 1
Compression Ratio 10.4:1 11.3:1
Secondary Reduction Ratio 3.133 NA
Gearbox Type Return Type, Chain Drive NA
Bharat Stage IV (BS4) NA
Engine Description Liquid-cooled, 4-stroke, SOHC, 4-valve 149.5cc, 4-stroke, 1-cylinder, 4-Valve, DOHC
Maximum Power 16.8 Bhp @ 8500 rpm 16.9 Bhp @ 9000 rpm
Maximum Torque 15 Nm @ 7500 rpm 13.7 Nm @ 7000 rpm
No. of Gears 6 6
Clutch Wet Multiple-disc Wet Multi Plate
Cooling Liquid Cooling Liquid Cooled with Auto Fan
Gear Ratios 1st=2.833, 2nd=1.875, 3rd=1.364, 4th=1.143, 5th=0.957, 6th=0.84 NA
Ignition T.C.I NA
Fuel System Fuel Injection PGM-Fi
Lubrication Wet Sump Wet Sump
 

BATTERY

  YZF R15 CBR
Voltage 12V 12V
Capacity 3.5Ah (10H) 5Ah
Battery Type Maintenance Free Maintenance Free

BRAKES & SUSPENSION

  YZF R15 CBR
Front Brake 267mm Hydraulic Single Disc 276mm Disc
Front Suspension Telescopic Telescopic Forks
Rear Suspension Linked Type Monocross Pro-link Suspension
Rear Brake 220mm Hydraulic Single Disc 220mm Dis
Shades Revving Blue, Adrenaline Red, Sparky Green Revolution White, Honda Racing Red, MotoGP Edition, Nitro Black

 

কোনটি কিনবেন ?

এখন আশি মূল প্রশ্নে, আপনার আসলে কোনটি কেনা উচিৎ?

দুটি বাইকের মাঝে আপনি পার্থক্য খুঁজতে গেলে হতাশ হবেন, কারন, বাইক দুইটি দুই ব্র্যান্ডের এবং তারা আপনার জন্য সবচাইতে ভালো সুবিধা দেবার চেস্টা করেছে এবং আমাদের উচিৎ আমাদের ভালোলাগাকে গুরুত্ব দিয়ে নিজের পছন্দের মোটরসাইকেলটি বেছে নেয়া।

তথ্য সূত্র . choosemybike.in

আপনার কোন প্রস্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার রাইডার বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

-BikeGuy Advertisement-