YAMAHA FZS FI V2 মালিকানা রিভিউ

93

দেখতে দেখতে বাইক টা ২০০০+ কিঃমি চালিয়ে ফেললাম। তাই ভাবলাম ছোটখাটো একটা রিভিউ দেই।

২০১৭ মডেল যখন আসে তার ঠিক ৫ দিন পর ২৮ এপ্রিল আমার ‘Grey Bird’ টা কিনি। এটা আমার লাইফ এর প্রথম বাইক। কিন্তু বাইক তা যেদিন কিনি সেইদিন থেকে মনে হয় যে বাইক টা ঠিক আমার মনের মত করে বানানো হইসে। এতো স্মুথ আর এতো কম্ফর্ট বলে বুঝানো মুশকিল। অনেক সিনিয়র ভাইরা বাইক মেইন্টেনেন্স সম্পর্কিত অনেক ধারনা দেয়াতে অনেক সুবিধা হয়েছে। আমি প্রথম থেকেই ব্রেক ইন পিরিওড মেনে চলার চেষ্টা করেছি আর পি আম ৫ এর উপরে কখনো যায় নাই। প্রথম ইঞ্জিন অয়েল ৩০০ কিঃমি তে ড্রেইন দেই ইয়ামালুব অপ্টিমা প্রাইম। কিন্তু একটা সমস্যা ফেইস করছিলাম সেটা হলো কয়েক কিঃমি চালালেই ইঞ্জিন প্রচুর গরম হতো পায়ে পর্যন্ত গরম লাগতো। আর ৮-১০ কিমি চালালে সাউন্ড টা কেমন যেন ফেটে যেতো। হয়তো ইঞ্জিন নতুন ছিলো তাই এরকম হতো।

এই বাইক এর চিরাচরিত সমস্যা চেইন। এইটাকে নিয়ে আমিও প্রব্লেম ফেইস করসি। ১০০০কিমি তে ২ বার টাইট দেয়া লাগসে। এর মাঝে ৮০০কিমি তে আবার ইয়ামালুব দেই।

কিন্তু এবার আরেকটা সমস্যা হচ্ছিল সেটা হলো গিয়ার অনেক হার্ড লাগছিল। ১ম সার্ভিস এর সময় এটা বলেছিলাম কিন্তু তাও ঠিক হয় নাই। কি আর করার হার্ড গিয়ারিং করেই চালাচ্ছিলাম। বাইক আগের থেকে অনেক স্মুথ হয়ে গিয়েছিল অবশ্য। ১৫৬৫কিমি তে মটুল ২০w৪০ মিনারেল ভরলাম। আমি তো অবাক! বাইক পুরা চেঞ্জ। এই প্রথম এতো স্মুথনেস পাইলাম আর গিয়ার শিফটিং আরো স্মুথ হয়ে গেসে। মটুল ভরার পরের দিন এফ আই ক্লাব এর সাথে ময়মনসিংহ টুর দেই প্রায় ৩০০কিমি এক দিনে। পুরা টা টুর এ হাই আর পি এম এ চালাইসি। সেদিন মটুল+এফ আই এর কম্বিনেশন টা ভাল্লাগসে।ইঞ্জিন ও অনেক কম গরম হইসে। টপ স্পিড ১১২ তুলসি চাইলে আর তুলা যাইত। কিন্তু ১০০+ এ রাইড করলে মনে হয় যে বাইক টা একটু কাপে এটা কেনো বুঝলাম না।

এবার আসি মাইলেজ এর কথায়। প্রথমের দিকে ৪৩-৪৫ পাইতাম। লং টুর এ হাই আরপিএম এ চালাইসি বলে হয়তো একটু কম পাইসি ৩৯। কিন্তু এক দিনে এতো লম্বা টুর দিয়েও সাউন্ড একটুও ফাটে নাই। এখন মাইলেজ এভারেজ ৪০ পাই।

বাইক এর চেইন সমস্যা বাদ দিলে আমি সন্তুষ্ট বাইক টা নিয়ে। এখন পর্যন্ত ৪ বার চেইন টাইট দিসি। আশা করি ভবিষ্যৎ এ আরো ভাল পারফরমেন্স পাবো।

ধন্যবাদ কষ্ট করে পরার জন্য। 🙂

রিভিউ টি শেয়ার করেছেনঃ Arman Hossain

আপনার কোন প্রস্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার রাইডার বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

-BikeGuy Advertisement-