পুরাতন বাইক ক্রয়ের কথা ভাবছেন ?

2691

বর্তমানে মোটরসাইকেল একটি গুরুত্ত পূর্ণ যানবাহন । কিন্তু সবার নতুন বাইক কেনার সামর্থ্য নেই । সুতরাং আপনি কী পুরাতন মোটরসাইকেল ক্রয়ের কথা ভাবছেন ?  কি ধরণের ব্যবহৃত মোটর সাইকেল চাই আপনার? কোথায় পাবেন? কেনার সময় কী কী বিষয় পরীক্ষা করা উচিত? আশা করি এই আর্টিকেল টি পড়ে ধারনা নিতে পারবেন আপনি ।

অনুরোধ থাকবে পুরো আর্টিকেল টি পড়ে আপনার মতামত অথবা এই আর্টিকেল টি সম্পর্কে আপনার সাজেশন নিচের কমেন্ট বক্সে জানানোর জন্য ।

কি ধরনের রাইড আপনি বেশি করেন :

প্রথমত নির্ধারণ করুন কি ধরনের রাইড আপনি সবসময় করবেন । আপনি কি চাকুরিজিবি ?অফিসে যাবার জন্য বাইক দরকার ? আপনি কী ছাত্র ? নাকি আপনি সৌখিন বাইকার ?

অথবা আপনি একজন মধ্যবিত্ত , style এর পাশাপাশি অন্যান্য ফিচারও চাই আপনার ।বাইক কেনার আগে নির্ধারণ করতে হবে কি উদ্দেশে আপনি বাইক টি কিনবেন ।

বাজেট নির্ধারনঃ

আপনার রাইডের ধরন নির্ধারিত হবার পর আপনাকে আপনার বাজেট ঠিক করতে হবে । কারণ বাংলাদেশের পরিপ্রেক্ষিতে বাজেট অনেক বড় একটা ব্যপার । আপনার বাজেটই বলে দেবে আপনার বাইক কেমন টাইপের বা কোন ব্রান্ডের হতে পারে । বাজেট ছাড়া কিছু টাকা অতিরিক্ত রাখবেন কেননা পুরাতন বাইক আনুষঙ্গিক জিনিস কিনতে হতে পারে।

সম্ভাব্য বাইকের একটি তালিকা তৈরি করুন:

আপনার বাজেটের সাথে মিলিয়ে বাইকের সংক্ষিপ্ত একটি তালিকা করুন । যদি এ তালিকা লম্বা হয় তাহলে আপনার পছন্দ অনুযায়ী ছোট করুন ।মনে রাখবেন, সুধু বাইকের সুন্দর লুক দেখেই পছন্দ করবেন না , লুক এর পাশাপাশি অন্যান্য বিষয়গুলোও বিবেচনায় রাখবেন।

বন্ধু-বান্ধবের পরামর্শ নিন :

যে বাইকটি কিনতে চাইছেন সে সম্পর্কে আপনার আশে পাশের লোকজন বা আত্মীয়স্বজনের অভিমত নিন ।প্রথম একটা বাইক দেখেই সেটি কিনে ফেলবেন না । অভিজ্ঞ কাউকে সঙ্গে নিন , বাইকটি একটু চালিয়ে দেখুন । তার সাথে বাইকের গুনাগুন নিয়ে আলোচনা করুন। এটি চালানো সহজ কিনা সেসব নিয়ে কথা বলুন। হয়ত দেখা যেতে পারে ওই বাইকটি তার আগে ছিল বা ওই বাইক লং টাইম রাইডিং এর এক্সপেরিয়েন্স তার আছে ।

আপনার পছন্দ কে প্রাধান্য দিন :

আপনার পছন্দের দিকে সবসময়ই প্রাধান্য দিন । কারণ , বাইকটি আপনার অনেক আদরের একটা জিনিস । যে বাইকটার সাথে আপনি কমফোর্ট ফিল করেন সেটাই নিয়ে নিন । সামান্য বেশি দাম বা বেশী মাইলেজের দিকে না তাকিয়ে আপনার পছন্দের দিকেও একটু তাকান । কারণ , এটা একটা মেন্টাল স্যটিফ্যিাকশনের বিষয় ।

সম্ভাব্য ডিলার থেকে কিনুনঃ

চেষ্ঠা  করুন নিরধারিত ডিলার থেকে বাইক কেনার ,যেন ভবিষ্যতে কোন সমস্যা হলে আপনি যোগাযোগ করতে পারেন ।আপনি বেক্তি বিশেষ এর কাছ থেকে বাইক কিনতেই পারেন যদি সে আপনার পূর্ব পরিচিত হয়ে থাকে ।

খুচরা যন্ত্রাংশের প্রাপ্যতাঃ

যে সকল বাইকের খুচরা যন্ত্রাংশ সহজলভ্য,আপনার কাছাকাছি পাওয়া যায় সেটা কিনুন, কেননা বাইকটি যে কো্ন সময় বিকল হতে পারে ফলে যদি যন্ত্রাংশ না পান তবে বাইকটি আর কোণ কাজেই আসবেনা।

এবার আসুন কেনার সময় কী কী জিনিস পরিক্ষা করে কিনবেন ।

০১ । বাইক কেনার আগে মার্কেটে ভালোভাবে খোঁজাখুঁজি করে দেখুন যে ব্যবহৃত বাইকটির সকল পার্টস বাজারে পাওয়া যাই কিনা।

০২ । বাইকটির ফুটপেগ, মিরর, হ্যান্ডেলবার, ব্রেক , ক্লাচ লিভার সব কিছু ভাল করে দেখে নিন।

০৩ । ফুটপেগ টা ভালোভাবে দেখবেন। ফুটপেগ এর উপর টি খুব বেশী পুরনো হলে জানবেন যে বাইকটি অনেক বেশী চালানো হয়েছে।

০৪ । বাইকের বডিতে বা ট্যাঙ্ক এবং ফেনডার এ ময়লা বা স্কারচ আসে কিনা তা দেখে নিন ।

০৫। ইঞ্জিন এবং ট্র্যান্সমিশান চেক করে দেখুন তেল লিক করে  বা চুইয়ে পড়ে কিনা ।

০৬ । চেইনটি যথাযথভাবে টাইট থাকা জরুরী এবং পরিষ্কার আছে কিনা দেখে নিন। চেইনে ময়লা থাকলে বুঝতে হবে বাইকটি ভালভাবে মেইনটেইন করা হতোনা ।

০৭ ।ব্রেকটি চেক করা অত্যাবশ্যক । এটা মসৃণ, পরিষ্কার থাকবে আর এটিকে যদি ব্লু রঙের দেখতে লাগে তার মানে হল এটি ওভার হিটিং ব্রেক।

০৮ । টায়ারগুলি অতিমাত্রায় ব্যবহার করা হয়েছে কিনা তাও লক্ষ্য করুন।

০৯ । যদি বাইকটি স্টার্ট করার পর নীল ধোঁয়া বের হয় তাহলে বাইকটি কেনা থেকে বিরত থাকুন। কারণ নীল ধোঁয়া পরিবেশের জন্য ক্ষতিকর।

১০ ।  বারবার স্টার্ট করে এবং ইঞ্জিনের অপারেশান ভালোভাবে পরীক্ষা করুন ।

 

এ সকল কিছু ঠিকঠাক থাকলে পছন্দের বাইক টি নিয়ে নিন । আর হা আপনি যেহেতু পুরাতন বাইক কিনছেন সুতরাং প্রতিবার এটি চালানোর আগে টায়ার প্রেশার আর বাইকের অবস্থা অবশ্যই দেখে নিবেন । আপনার নিরাপত্তার জন্যই কন্ট্রোল, ক্যাবেল, হোজেস, চাকা, ব্রেক, লাইটস, চেইন, সাসপেনসান সব কিছু নিয়মিত চেক করবেন।

 

আর্টিকেল টি সম্পর্কে আপনার মতামত কমেন্ট বক্সে জানাতে ভুলবেন না কিন্তু ।

তথ্য সুত্র: http://www.wikihow.com, https://rideapart.com,  http://www.popularmechanics.com

আপনার কোন প্রস্ন থাকলে বা এই বিষয়ে কোন কিছু জানানোর থাকলে নীচের মন্তব্য বিভাগে লিখতে ভুলবেন না । আপনার রাইডার বন্ধুদের সাথে নিবন্ধটি শেয়ার করে নিন যাতে তারাও জানতে পারে ।

-BikeGuy Advertisement-